ব্রেকিং

x

সারা গায়ে কালি মাখানো শিল্পী পাগলের আধ্যাত্মিক সাধনার কথা

শুক্রবার, ১৬ আগস্ট ২০১৯ | ১০:৩৬ অপরাহ্ণ | 660 বার

সারা গায়ে কালি মাখানো শিল্পী পাগলের আধ্যাত্মিক সাধনার কথা
শিল্পী পাগল

ওলিদের মাজার শরীফে কিছু পাগল আছে। তাদের পাগল ডাকলেও পাগল ভাবার সুযোগ নেই। মাজার কেন্দ্রিক লোকসমাজে আধ্যাত্মিক সাধনায় যুক্ত মনে করেই পাগল বলা হয়। আধ্যাত্মিক সাধনায় যুক্ত এসব পাগলদের পাগল হিসেবে গ্রহনযোগ্যতাও রয়েছে। ওরা পাগলখ্যাতির ভেতর দিয়ে খুঁজে বেড়ায় সাধনভজনের ফলাফল। নানা মন্ত্রে দীক্ষিত এই পাগলদের আধ্যাত্মিক সাধনা আর গুপ্তজ্ঞানের চর্চার কথা শুনা যায় তাদের মাজারে আগত হাজারো ভক্ত আশেকানদের মুখে।

আখাউড়া খড়মপুর কেল্লা বাবার মাজার শরীফের ওরশ উপলক্ষে আগত শিল্পী পাগল (৪৫) নামে এক নারী পাগলের সাথে আজ শুক্রবার দেখা হয়। তার চালচলন একদম আলাদা। কথা বলে একদম কম, গায়ে কালি মাখানো, কারো ধার ধারেনা নিজের মতই মাজার শরীফে ঘুরছেন। ওরশ উপলক্ষে খড়মপুর মাজার শরীফসহ দেশে-বিদেশের মাজার শরীফে তার আগমন ঘটে। পোশাকে বিচিত্র রঙ, তালি দেয়া বস্তার কাপড় সারা শরীর জুড়ে। কেউ কেউ শুধু বেশভূষায় পাগলফকির সেজে ঘুরে বেড়ালেও শিল্পী পাগলী গুরুর বাৎলে দেয়া পথ চলতে গিয়ে দীর্ঘদিন ধরে এই পাগল বেশে আছেন। নিজেকে নিয়ন্ত্রণের এ এক কঠিন সাধনায় তিনি দিন পারছেন!


শিল্পী জানায়, মাঝে মধ্যে সে নিজেকে পুরুষ হিসেবেও কল্পনা করে। এই ভাবনার পিছনে থাকে কামের উর্ধ্বে ওঠার বাসনা। নিজেকে পুরুষ হিসেবে ভাবলে তখন অন্য পুরুষের প্রতি আকর্ষণ এড়ানো সম্ভব তারপরও এই সাধনাকে পরিপুর্ণতা দিতে তিনি সারা গায়ে মাখেন কালি। তার পাগলামীর সাথে যোগসাজশ রয়েছে আধ্যাতিক সাধনার। আবার আধ্যাত্মিকতার ভেতর দিয়ে তিনি বাস্তবকে বোঝার সাধনাও করেন।

শিল্পীর মুখে মনমোহন দত্তের গানে তারই আভাস পাওয়া গেল।
-পাগল পাগল সবাই পাগল তবে কেন পাগল খোটা
দিল দরিয়ায় ডুব দিয়া দেখ পাগল বিনে ভাল কেডা
কেহ রুপে কেহ রসে কেউ বা পাগল ভালবেসে
কেউবা পাগল কেঁদে হেসে ভেবে মনে এইডা ওইডা ॥
কেহ ধনে কেহ মনে কেউ পাগল অভাবের টানে
তন্ত্র-মন্ত্র নাহি জানে তারা লাগায় শুধু প্রেমের ল্যাঠা ॥

শিল্পী বলেছেন, আসলে বিরহ থেকেই শুরু হয় জীবনের অর্থ খোঁজার সাধনা। আর তা থেকেই অনেক সময় নিজের মধ্যে পাগলামীটা এসে যায়। নিবিড় ভাবে জড়িয়ে যায় আধ্যাত্মিকতার সাথে। ধর্মীয়চর্চা করতে গিয়েই পাগলামীর বিচিত্র সব কিছু অনুসরণ করে যুক্ত হয় আধ্যাত্মিক সাধনা। জীবন বৈচিত্র্যকে বুঝে নেয়ার মধ্যেও জ্ঞান সাধনা আছে বলে শিল্পী পাগল মনে করেন।

সাদা-কালো, ভালো-মন্দ, পাপ-পূণ্য, তিতা-মিঠার বোধ অনুভব করতে পারে আবার গভীর অনুভব উপলব্ধিও করে কিন্তু তাদের প্রকাশটা অন্যদের চেয়ে আলাদা।

শুরুতে তার ঠিকানা জানতে চাইলে বলেন- লগে বাড়ি, লগে ঘর দুনিয়া দারির কিসের খবর-পরে কয়েকবার বলার পর শিল্পী বলেছে তার জন্মস্থান চাদপুর জেলার মতলব থানার গানবাড়ি গ্রামে। ৩০ বছর ধরেই তার এই পাগল বেশ।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!