ব্রেকিং

x

ভোটের মাধ্যমে অশুভ বিজেপি জোটকে সমুচিত জবাব দিন -মানিক সরকার

শুক্রবার, ০৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ | ৯:২০ পূর্বাহ্ণ | 526 বার

ভোটের মাধ্যমে অশুভ বিজেপি জোটকে সমুচিত জবাব দিন -মানিক সরকার
মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার

সিপিআইএমের পলিট ব্যুরো সদস্য ও ত্রিপুরারাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার বলেছেন, ত্রিপুরাকে খন্ডিত করা যাদের একমাত্র দাবী, বিভেদকামী সেই অপশক্তি আইপিএফটির সাথে নির্বাচনে জোট বেধেছে বিজেপি। এই জোট নিয়ে প্রশ্ন করলে বিজেপি মুখ খুলতে চায়না। কারণ তাদের কাছে কোন জবাব নেই। ত্রিপুরার মানুষ এতো নিবোর্ধ নয়, এতো বোকা নয়, ত্রিপুরারাজ্যের মানুষের কাছে আপনারা (বিজেপি) কিন্তু ধরা পড়েগেছেন।
গতকাল বৃহস্প্রতিবার খোয়াই এক নির্বাচনী জনসভায় তিনি এই সব কথা বলেছেন।


মুখ্যমন্ত্রী মানিক সরকার আরো বলেছেন, বিজেপি আর এসএস, বিশ্ব হিন্দু পরিষদ এই রাজ্যের মানুষের চেতনার পরিমাপ করার চেষ্টা করেছে কিন্তু বুঝতে পেরেছে ত্রিপুরার মাটি বড় শক্ত। এতে জনগণের দুশমনরা দাড়াতে চাইলে পা পুড়ে যাবে। মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করলে মানুষ রাজনৈতিক মতাদর্শগত সংগ্রামের ব্যারিকেড তৈরী করবে। এখানে এতো সহজে বামফ্রন্ট টলানো যাবেনা। এতো কোমরের জোর বিজেপির ত্রিপুরাতে নাই। মানুষকে প্রলোভন দিয়ে কোন লাভ হবে না।
মানিক সরকার প্রধানমন্ত্রীর তথাকথিত গুজরাট মডেলকেও তীব্র আক্রমন করে বলেছেন, এরা ত্রিপুরায় চলো পাল্টাই বলছেন। এদেরকেই পালটানোর দামামা কিন্তু গুজরাটেই বেজে গেছে। যে রাজ্যে আজকের যিনি দেশের প্রধানমন্ত্রী তিনি বারো বছর এক টানা মুখ্যমন্ত্রী ছিলেন। ওখান থেকে বলেছেন, গুজরাটকে নাকী সোনার পাতে মুড়ে দিয়েছেন। এবার দেশে গুজরাট মডেল ল্যান্ড করবেন। সেটা দেখতে দেশের সেরা অর্থনীতিবিদ, সংবাদ মাধ্যমের প্রতিনিধি গেছেন গুজরাটের গ্রামে। গিয়ে দেখেন একটা পাকা রাস্তা নাই, স্কুল নাই, বিদ্যুৎ নাই, পানীয় জলের ব্যবস্থা নাই, সেচের জল নাই, হাসপাতাল নাই, মাথার উপর ছাউনি নাই, শিশুদের পুষ্টি নাই, এটা কিসের মডেল? সংবাদ মাধ্যমেই প্রশ্ন উঠেছে। এবারের নির্বাচনে প্রধানমন্ত্রী লোকসভার অধিবেশন পিছিয়ে দিয়ে এক মাস মাটি কামড়ে পড়ে রইলেন একশো জনের বাছাই করা টিম নিয়ে। ভোটের ফল কী দাড়ালো? ১২২ আসন থেকে কমে ৯৯ আসন। কোনক্রমে ক্ষমতায় টিকে থাকলেন। রাজস্থানে দুইটি লোকসভা আর একটি বিধানসভার উপ-নির্বাচনে গোহারা হেরেছে বিজেপি। পচন ধরেছে। এটা কিসের লক্ষণ?
বিদ্রোহ আজ বিদ্রোহ চারদিকে, এতো বিদ্রোহ দেখিনি তো আগে- কবি সুকান্তর কবিতার উদ্ধৃতিটুকু দিয়ে মানিক সরকার বলেন, দেশে বিজেপির বিরুদ্ধে বিদ্রোহ শুরু হয়েছে। প্রতিশ্রুতির খেলাপ করা বিজেপির ধর্ম। মানুষ ২০১৯ সালের লোকসভা নির্বাচনে ওদের উচিত শিক্ষা দেবে।
সবশেষে সম্প্রীতি আর উন্নয়নের স্বার্থে বামফ্রন্টকে সবকটি আসনে আরো বেশী ভোটের ব্যবধানে জয়ী করার মাধ্যমে অশুভ বিজেপি জোটকে সমুচিত জবাব দিতে জনগণের প্রতি আহবান জানান মানিক সরকার।
এই জনসভায় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তৃতা করেন সিপিআইএমের অঘোর দেববর্মা, নির্মল বিশ্বাস, বিশ্বজিৎ দত্ত, শুক্লা সেনগুপ্তা প্রমুখ।


আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!