ব্রেকিং

x

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় করোনা আক্রান্ত সন্দেহে শিশুসহ ৬ জনের নমুনা সংগ্রহ

মঙ্গলবার, ০৭ এপ্রিল ২০২০ | ৮:৪০ অপরাহ্ণ | 3825 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলায় করোনা আক্রান্ত সন্দেহে শিশুসহ ৬ জনের নমুনা সংগ্রহ
akhauranews.com

নাসিরনগর উপজেলায় করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে একই পরিবারের তিনজনসহ ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।


আজ মঙ্গলবার  দুপুরে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে একই পরিবারের ৩ জনসহ ৫ জনের  নমুনা সংগ্রহ করা হয়। এদের মধ্যে তিন বছর বয়সী এক শিশুও রয়েছে। তাদের বাড়ি নাসিরনগর উপজেলা সদরে।


নাসিরনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. অভিজিৎ রায় বিষয়টি নিশ্চিত করে বলেন, বিভিন্ন তথ্যসূত্রে আমরা জানতে পারি এই পাঁচজন সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত। সেজন্য করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে তাদের ডেকে এনে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আইসোলেশন ওয়ার্ডে রেখে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। করোনাভাইরাস পরীক্ষার প্রতিবেদন না আসা পর্যন্ত তাদের সবাইকে হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকতে বলা হয়েছে।

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার সিভিল সার্জন ডা. মোহাম্মদ একরাম উল্লাহ বলেন, ওই পাঁচজনের গলা এবং নাক থেকে নমুনা নিয়ে টেস্টটিউবে করে সংরক্ষণাগারে রাখা হয়েছে। এভাবে প্রতিদিনই আমরা নমুনা সংগ্রহ করব। বিভিন্ন উপজেলা থেকে এভাবে নমুনা সংগ্রহ করে একসঙ্গে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হবে। স্থানীয়ভাবে নমুনা সংগ্রহের জন্য মেডিকেল টেকনোলজিস্টরা অনলাইনে প্রশিক্ষণ নিয়েছেন।

এদিকে বাঞ্ছারামপুর উপজেলায় আইয়ুবপুর ইউনিয়নের চরছাউনী গ্রামের এক কৃষককে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত সন্দেহে ঢাকায় পাঠানো হয়েছে। গতকাল সোমবার বিকেলে তাকে ঢাকায় পাঠানো হয়। ৪৫ বছর বয়সী এই কৃষক উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি ছিলেন।

বাঞ্ছপরামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. আল মামুন বলেন, ওই কৃষকের শরীরে করোনাভাইরাসের উপসর্গ থাকায় তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। সেখানে প্রয়োজন হলে তার নমুনা পরীক্ষা করা হবে।

বাঞ্ছারামপুর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) নাসির উদ্দিন সারোয়ার বলেন, যদি এই কৃষক করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন তাহলে যারা তার সংস্পর্শে এসেছেন তাদেরকে কোয়ারেন্টাইনে রাখা হবে।

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!