ব্রেকিং

x

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিতর্কিত আ:লীগ নেতাকে সম্মাননা : লিখিত ব্যাখ্যা চেয়েছেন ডিসি

সোমবার, ০৪ জানুয়ারি ২০২১ | ১০:১১ পূর্বাহ্ণ | 353 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিতর্কিত আ:লীগ নেতাকে সম্মাননা : লিখিত ব্যাখ্যা চেয়েছেন ডিসি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় মহামারি করোনাভাইসের দুর্যোগকালে অসহায়দের জন্য সরকারের দেয়া ওএমএস কার্ডের অনিয়ম নিয়ে ‘বিতর্কিত’ আওয়ামী লীগ নেতা মো. শাহ আলমকে কোন প্রক্রিয়ায় সমাজসেবা সম্মাননার জন্য মনোনয়ন দেয়া হয়েছে তার ব্যাখ্যা চেয়েছেন জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খান। বিষয়টি ২৪ ঘণ্টার মধ্যে লিখিতভাবে ব্যাখ্যা করার জন্য সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মাসুদুল হাসান তাপসকে গতকাল রোববার রাতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় থেকে চিঠি পাঠানো হয়।


জেলা প্রশাসক সাক্ষরিত ওই চিঠিতে বলা হয়, ইতোপূর্বে মো. শাহ আলম ওএমএস ডিলারশিপ সংক্রান্ত বিষয়ে বিতর্কিত হওয়ায় তাকে সম্মাননা প্রদান করায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনা সৃষ্টি হয়েছে। কোন প্রক্রিয়ায় এবং কিভাবে তাকে সমাজসেবায় বিশেষ অবদানের জন্য মনোনয়ন দেয়া হয়েছে, এ বিষয়টি নিম্ন সাক্ষরকারী জ্ঞাত নন। এ অবস্থায় মো. শাহ আলমকে সম্মাননা প্রদানের বিষয়টি কোন প্রক্রিয়ায় নির্ধারিত হয়েছে তা আগামী ২৪ ঘণ্টার মধ্যে লিখিতভাবে ব্যাখ্যা করার জন্য অনুরোধ করা হলো। এর আগে সমাজসেবা দিবস উপলক্ষ্যে গত শনিবার জেলা আ.লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক শাহ আলমকে সম্মাননা দেয় সমাজসেবা কার্যালয়।


ব্রাহ্মণবাড়িয়া পৌরসভার ১০নং ওয়ার্ডের জন্য বরাদ্দকৃত ওএমএস কার্ডের তালিকায় জেলা আ.লীগের শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক শাহ আলমের স্ত্রী মোছাম্মৎ মমতাজ আলম ও মেয়ে আফরোজাসহ স্বজনদের নাম ওঠানো হয়। পরবর্তীতে বিষয়টি নিয়ে বিভিন্ন গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশের পর তুমুল সমালোচনার মুখে গত ১৩ মে জেলা ওএমএস কমিটির সভায় শাহ আলমের ওএমএস ডিলারশিপ বাতিল করা হয়।

ডিলারশিপ বাতিলের বিষয়ে জেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক সুবীর নাথ চৌধুরী জানিয়েছিলেন, ওএমএস কার্ডের তালিকায় পরিবার ও স্বজনদের নাম ওঠানোর ব্যাপারে সংশ্লিষ্টতা পাওয়ায় শাহ আলমের ওএমএস ডিলারশিপ বাতিল করা হয়।
তবে শনিবার সমাজসেবার জন্য শাহ আলমকে সম্মাননা জানানো হয়। জেলা প্রশাসক হায়াত উদ-দৌলা খান সমাজসেবার সম্মাননা তুলে দেন শাহ আলমের হাতে। পরে শাহ আলম নিজেই তার ব্যক্তিগত ফেসবুক আইডি থেকে সম্মানা পাওয়ার বিষয়ে পোস্ট করেন। এই পোস্ট দেয়ার পরপরই মিশ্র প্রতিক্রিয়া দেখা দেয়।

সম্মাননা নেয়ার ব্যপারে জানতে চাইলে আওয়ামী লীগ নেতা শাহ আলম বলেন, ‘আমি সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে প্রশিক্ষণপ্রাপ্ত একজন সমাজকর্মী। সমাজসেবা কার্যালয় থেকেই আমাকে এই সম্মাননার জন্য বাছাই করা হয়েছে। একটি দুষ্টচক্র রাজনৈতিকভাবে হেয় করার জন্য আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার করছে।’

এ ব্যাপারে ব্রাহ্মণবাড়িয়া সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক মাসুদুল হাসান তাপস বলেন, ‘উনি (শাহ আলম) সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয়ের প্রশিক্ষিত একজন সমাজকর্মী। পাশাপাশি আমাদের শিশু পরিবার ব্যবস্থাপনা কমিটির সদস্য। ওএমএস ডিলারশিপ বাতিলের তথ্যটি আমাদের জানা ছিল না। করোনাভাইরাসের কারণে আমাদের তাড়াহুড়ার মধ্যে অনুষ্ঠান করতে হয়েছে। যদি আমরা আগে থেকে জানতাম, তাহলে হয়তো তার নামটি আসতো না।

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!