ব্রেকিং

x

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পালিয়ে যাওয়া করোনা রোগীকে পরিবারের লোকজন ঠাঁই দেয়নি

বুধবার, ১০ জুন ২০২০ | ১:৫৪ অপরাহ্ণ | 525 বার

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় পালিয়ে যাওয়া করোনা রোগীকে পরিবারের লোকজন ঠাঁই দেয়নি

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় আইসোলেশন থেকে পালিয়ে যাওয়া করোনা আক্রান্ত কেফায়েত উল্লাহ (৩৮) ফিরে এসেছেন। গতকাল মঙ্গলবার বিকেলে স্বেচ্ছায় তিনি ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউটের প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশন সেন্টারে ফিরে আসেন বলে জানিয়েছেন সংশ্লিষ্টরা।


কেফায়েত উল্লাহ জেলার সরাইল উপজেলার টিঘর গ্রামের বাসিন্দা। ‘না বুঝে’ আইসোলেশন সেন্টার থেকে পালিয়ে গিয়েছিলেন বলে জানিয়েছেন কেফায়েত।


আরও পড়ুন: আখাউড়ায় লকডাউন পরিবারগুলোতে খাবার পাঠালেন ইউএনও রেইনা

কেফায়েতের বরাত দিয়ে আইসোলেশন সংশ্লিষ্টরা জানিয়েছেন, না বুঝে আইসোলেশন সেন্টার থেকে চলে গিয়েছিলেন তিনি। কিন্তু বাড়িতে যাওয়ার পর পরিবারের লোকজন তাকে ঠাঁই দেয়নি। চলে যাওয়ার পর দুইদিন পার্কে ঘোরাফেরা করেছেন। এ সময়টাতে তিনি সামাজিক দূরত্ব মেনে চলেছেন বলে দাবি করেছেন। বাড়িতে ঠাঁই না পেয়ে মঙ্গলবার বিকেলে তিনি আইসোলেশন সেন্টারে ফিরে এসেছেন।

ব্রাহ্মণবাড়িয়া নার্সিং ইনস্টিটিউটের প্রাতিষ্ঠানিক আইসোলেশন সেন্টারের কর্তব্যরত চিকিৎসক ইনজামামুল হক সিয়াম বলেন, তিনি না বুঝে চলে গিয়েছিলেন। চলে যাওয়ার পর তিনি কোথায়-কোথায় ছিলেন সেই তথ্য নিয়ে তার সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের নমুনা সংগ্রহ করা হবে। নিয়ম অনুযায়ী তাকে আবারও আইসোলেশন সেন্টারে ভর্তি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ; সাতদিনে আক্রান্ত ১৮৪ জন

এর আগে গত রোববার করোনা মুক্ত হওয়ায় সাতজনকে আইসালেশন সেন্টার থেকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়। ওই সাতজনের সঙ্গে চলে যান কেফায়েত। এ ঘটনায় থানায় সাধারণ ডায়েরি করে সেন্টার কর্তৃপক্ষ।

আরও পড়ুন: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় হাসপাতাল থেকে পালিয়েছে করোনা আক্রান্ত যুবক

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!