ব্রেকিং

x

‘ডালের’ কেজি ৫০ লাখ টাকা!

সোমবার, ২৯ জানুয়ারি ২০১৮ | ৯:০০ অপরাহ্ণ | 604 বার

‘ডালের’ কেজি ৫০ লাখ টাকা!
সোনার বারকে ডালের আকৃতি করে নিয়ে আসা হয়। ঢাকা কাস্টম হাউসের সৌজন্যে

সুস্বাদু ডাল খেতে কে না ভালোবাসে! ভাতের সঙ্গে সামান্য ডাল হলেই পেটপুরে খাবারটা সেরে নেওয়া যায়। তাই বাংলাদেশের ঘরে ডালের কদর থাকে সব সময়। ডালের মতো গয়নারও চাহিদা রয়েছে এ দেশে। সেই গয়না সোনায় মোড়ানো হলে তো কথাই নেই। এই কদর আর চাহিদার বিষয়কে বিবেচনা করে সোনার বারকে ডালের আকৃতিতে রূপ দেওয়া হয়েছে। দূর থেকে দেখতে মনে হবে মুগ ডাল। কিন্তু হাতে নিয়ে পরীক্ষা করলে বোঝা যাবে যে এই ডাল সোনা দিয়ে তৈরি।


0429167a88d5941afc681bb8ca8a3854-5a6f14092e5b6


দেখতে ডালের মতো হলেও এগুলো সোনা। ঢাকা কাস্টম হাউসের সৌজন্যে।

এ ধরনের সোনার প্রায় ছয় কেজি ডাল পাওয়া গেছে সৌমিত্র দত্ত নামে এক ভারতীয়র কাছে। আনুমানিক ২১ বছর বয়সী এই তরুণকে হজরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পাওয়া গেছে।

গতকাল রোববার দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে বিমানবন্দরের গ্রিন চ্যানেল থেকে সৌমিত্রকে গ্রেপ্তার করা হয়। ঢাকা কাস্টম হাউসের একটি দল অভিযান চালিয়ে তাঁকে গ্রেপ্তার করে।

শুল্ক কর্মকর্তাদের দাবি, সৌমিত্র দত্তের কাছ থেকে পাওয়া সোনার মূল্য প্রায় তিন কোটি টাকা। সেই হিসেবে এক কেজি সোনার ডালের মূল্য ৫০ লাখ টাকা। এই ছয় কেজি সোনা সৌমিত্রের কাছে থাকা ওয়াটার ডিস্পেন্সারের কম্প্রেসারের মধ্য থেকে উদ্ধার করা হয়।

ঢাকা কাস্টম হাউসের উপকমিশনার অথেলো চৌধুরী বলেন, রিজেন্ট এয়ারওয়েজের একটি ফ্লাইটে করে সিঙ্গাপুর থেকে ঢাকায় আসেন সৌমিত্র। গ্রিন চ্যানেল পার হওয়ার সময় তাঁকে আটক করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে সোনা ও অন্যান্য শুল্ক কর আরোপযোগ্য পণ্য থাকার বিষয় অস্বীকার করেন তিনি। এ সময় তাঁর কাছে থাকা একটি ওয়াটার ডিস্পেন্সার উদ্ধার করা হয়। এর কম্প্রেসারের মধ্যে ডালের মতো ছোট আকৃতির বস্তু পাওয়া যায়। এর মোট ওজন ৫ কেজি ৯৫০ গ্রাম। বিশেষ কায়দায় কম্প্রেসারের মধ্যে সোনার ডাল ঢুকিয়ে ঝালাই করে দেওয়া হয়।

সৌমিত্রকে জিজ্ঞাসাবাদ করে পাওয়া তথ্যের বরাত দিয়ে এই শুল্ক কর্মকর্তা বলেন, সিঙ্গাপুরে বসবাসকারী এক ‘কাকা’ এই ওয়াটার ডিস্পেন্সার সৌমিত্রকে দিয়েছিলেন। এর ভেতর যে সোনা রয়েছে, সেটি তিনি জানতেন না। ঢাকার একটি হোটেলে দুদিন অবস্থান করার কথা ছিল তাঁর। এরপর ওয়াটার ডিস্পেন্সারটি নিয়ে তাঁর নিজ দেশের ফেরার কথা ছিল। এ ঘটনায় আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। সূত্র: প্রথম আলো

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!