ব্রেকিং

x

আসামির গলায় ফুলের মালা, ফেসবুকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া

মঙ্গলবার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ১১:৩৫ অপরাহ্ণ | 685 বার

আসামির গলায় ফুলের মালা, ফেসবুকে মিশ্র প্রতিক্রিয়া
ayesha_furniture

আখাউড়ায় শিশু ধর্ষণ চেষ্টায় অভিযুক্ত বৃদ্ধ মুক্ত মিয়া উচ্চ আদালত থেকে আগাম জামিন পেয়েছেন। জামিনে মুক্ত হওয়ার পর তাকে ফুল দিয়ে বরণ করা হয়েছে। আজ মঙ্গলবার বিভিন্ন অনলাইন সংবাদ মাধ্যম ও ফেসবুকে ফুলের মালাসহ তার ছবি প্রকাশের পর সোশ্যাল মিডিয়ায় মিশ্র প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়েছে।


খোজ নিয়ে জানা যায়, ৮ বছরের শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে আখাউড়া দক্ষিণ ইউনিয়নের হীরাপুর গ্রামের বাসিন্দা মতিউর রহমান ওরফে মুক্ত মিয়া নামে এক বৃদ্ধের বিরুদ্ধে গত ১৮ জুলাই মামলা হয়। গত ৯ই সেপ্টেম্বর উচ্চ আদালত থেকে এই বৃদ্ধ আগাম জামিন লাভ করে। জামিনে মুক্ত হওয়ার পর তার লোকজন ফুল দিয়ে বরণ করে বৃদ্ধকে ঘরে তুলেন। ফুল দিয়ে বৃদ্ধকে বরণ করার ছবি প্রকাশ হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে, পরে অনলাইন সংবাদ মাধ্যমে ছবিসহ নিউজ প্রকাশ হয়। ছবি প্রকাশ নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় পক্ষে-বিপক্ষে ব্যাপক প্রতিক্রিয়ার সৃষ্টি হয়।


আখাউড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সাধারন সম্পাদক মোহাম্মদ শরীফ তার ফেসবুক ওয়ালে লিখেছেন, শিশু ধর্ষণ চেষ্টা মামলার আসামী জামিন নিয়ে বাড়ী ফিরলেন বরের বেশে।

তিনি আরো বলেন, এসব মানুষের লজ্জা বলে কিছু থাকলে, একটি ধর্ষণ চেষ্টা মামলার আসামী নিয়ে শোডাউন দিতো না। মামলার আসামী আগাম জামিনে আসা মানে মামলা শেষ নয়।

এই লেখায় শিক্ষক মৌসুমী আক্তার তার মন্তব্যে লিখেছেন ফুলের মালা দিয়ে বরণ করা মানে এসব কাজের জন্য নেতিবাচক প্রভাব। সাংবাদিক দুলাল ঘোষ তার মন্তব্যে বলেছেন, মামলাটির নিষ্পত্তি হয়নি। জামিন হয়েছে। এমন গুরুতর অভিযোগ যার বিরুদ্ধে তার লোকজনের এভাবে উল্লাস করা ঠিক হয়নি। এতে বিরূপ বার্তা যাবে সমাজে। উল্লাসের এইসব ছবি ও ভিডিও মামলার আগামী তারিখে আদালতের নজরে আনা উচিত। আমজাদ হোসেন নামে আরেকজন ফেসবুক ব্যবহারকারী মন্তব্য করেছেন, জায়গা জমি নিয়ে জামেলাকে কেন্দ্র বৃদ্ধের বিরুদ্ধে অভিযোগ আনা হয়েছে।

এদিকে মুক্ত মিয়ার ছেলে আইনজীবী মিলন মিয়া একটি অনলাইন সংবাদ মাধ্যমকে জানায়, মাদক ব্যবসায় বাধা ও জমি সংক্রান্ত বিরোধকে কেন্দ্র করে তার ৮২ বছর বয়সী বৃদ্ধ পিতাকে ফাসিয়েছে একটি মহল।

তিনি আরো বলেন, তার পিতার জাতীয় পরিচয়পত্রে বয়স ৮২ হলেও মামলায় ফাসানোর জন্য বয়স দেখানো হয়েছে মাত্র ৬৫ বছর।

একটি অনলাইন সংবাদের মন্তব্য কলামে মো: ফারুক নামে একজন লিখেছেন, বৃদ্ধের বিরুদ্ধে যড়যন্ত্র হয়েছে। যড়যন্ত্রকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করা হোক।

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!