ব্রেকিং

x

আখাউড়া ইমিগ্রেশন পুলিশের উপর হামলা। গ্রেফতার ২জন। এলাকায় চাঞ্চল্য

বুধবার, ২৪ জানুয়ারি ২০১৮ | ৫:৪৩ অপরাহ্ণ | 1628 বার

আখাউড়া ইমিগ্রেশন পুলিশের উপর হামলা। গ্রেফতার ২জন। এলাকায় চাঞ্চল্য
গ্রেফতারকৃত সারোয়ার আলম ভুইয়া ও রিপন মিয়া

আখাউড়ায় স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন পুলিশের উপর হামলা হয়েছে। এই হামলার ঘটনায় সারোয়ার আলম ভুইয়া (৩০) ও রিপন মিয়া (৩৩) নামে দুইজনকে পুলিশ গ্রেফতার করেছে। ঘটনাটি ঘটেছে মঙ্গলবার বিকাল ৫টায়। ঘটনাটি এলাকার জনমনে ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি করেছে।
আখাউড়া স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন পুলিশ জানায়, মঙ্গলবার বিকালে আখাউড়া আনোয়ারপুর গ্রামের সারোয়ার আলম ভুইয়া (৩০) নামে এক ব্যক্তি ভারতে ভ্রমনের উদ্দেশ্যে ইমিগ্রেশনে আসে। পাসপোর্টের রেফারেন্স তথ্যে আইনী জটিলতা থাকায় ইমিগ্রেশন পুলিশ সারোয়ারকে রেফারেন্স নিয়ে আসতে বল্লে সে তা আনতে রাজি হয়নি বরং ইমিগ্রেশন পুলিশের এ এস আই আতিককে হুমকি দিয়ে বলে তার চাচা আওয়ামীলীগ নেতা তাই তাকে রেফারেন্স ছাড়াই ভারতে যেতে দিতে হবে। এ নিয়ে কথা কাটাকাটির এক পর্যায়ে সারোয়ার ও তার সাথে থাকা রিপন মিয়া এ এস আই আতিকের শার্টের কালার চেপে ধরে কিল ঘুষি মারতে থাকে, পুলিশ সদস্য বাহাদুর এগিয়ে আসলে তাকে ধরেও মারতে থাকে। খবর পেয়ে সাথে সাথেই ইমিগ্রেশন ইনচার্জ পিয়ার আহমেদ উর্দ্ধতন কর্তৃপক্ষকে জানিয়ে তাদের দু’জনকে ইমিগ্রেশনে আটক করলে সারোয়ার মোবাইল ফোনে লোকজন জড়ো করতে থাকে, পরে আখাউড়া থানা পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌছলে জড়ো হওয়া লোকজন পালিয়ে যায় এবং সারোয়ার ও রিপনকে গ্রেফতার করে থানায় নিয়ে আসে। রাতে এ এস আই আতিক বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে আখাউড়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।


খোজ নিয়ে জানাগেছে, গ্রেফতারকৃত সারোয়ার আলম আখাউড়া উপজেলা আওয়ামীলীগের যুগ্ম আহবায়ক ও ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা পরিষদ সদস্য আবুল কাশেম ভুইয়ার ভাতিজা।
এব্যপারে মামলার বাদী এ এস আই আতিক বলেছেন, প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তিনি ও পুলিশ সদস্য বাহাদুর এখন কিছুটা সুস্থ্যবোধ করছেন। গ্রেফতারকৃতদের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেছেন তিনি।
ব্যাপারে আখাউড়া স্থলবন্দর ইমিগ্রেশন ইনচার্জ এস আই পিয়ার আহমেদ জানান, পাসপোর্টের রেফান্সে আইনী জটিলতা থাকলে ইমিগ্রেশনের কার্যক্রম কখনো সম্ভব নয়। গ্রেফতারকৃতরা প্রভাব খাটিয়ে এই কার্যক্রম করতে পুলিশের উপর হামলা চালায়।
এ ব্যপারে স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান জালাল উদ্দিন জানান, ঘটনাটি তিনি জানেন। উভয়পক্ষের দোষত্রুটি রয়েছে বলে তার ধারনা তাই বিষয়টির সুষ্ঠু তদন্ত করে প্রকৃত অপরাধী খোজে বের করে শাস্তি দেয়ার দাবী করেছেন তিনি।
এ ব্যাপারে আখাউড়া থানার অফিসার্স ইনচার্জ মোশারফ হোসেন তরফদার ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, ইমিগ্রেশনের ঘটনায় অপরাধী দুইজনকে গ্রেফতার করে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।


আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!