ব্রেকিং

x

আখাউড়ায় শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে ১৪ শিক্ষককে ডিও লেটার দিলেন ইউএনও

মঙ্গলবার, ০১ মে ২০১৮ | ৫:০২ অপরাহ্ণ | 2058 বার

আখাউড়ায় শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে ১৪ শিক্ষককে ডিও লেটার দিলেন ইউএনও

আখাউড়ায় শিক্ষার মান উন্নয়নে বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহন করা হয়েছে। সুষ্ঠু পরিবেশ ও  শিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করতে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুজ্জামান তার কার্যালয় থেকে শিক্ষকদের ডিও লেটার পাঠাচ্ছে। শাহপীর কল্লা শহীদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ১৪জন শিক্ষক গতকাল সোমবার ডিও লেটার হাতে পেয়েছেন।


অত্র স্কুলের শিক্ষক মো: ইব্রাহীমকে দেয়া ৪০৫ নম্বর ডিও লেটারের শুরুতেই বলা হয়েছে, দেশকে উন্নয়ন ও সমৃদ্ধির দিকে এগিয়ে নিয়ে যেতে নানা রকম চ্যালেঞ্জের মধ্যে শিক্ষার গুণগত মান নিশ্চিত করা জরুরী। প্রয়োজন সুশিক্ষিত ও দক্ষ জনশক্তি। বর্তমান প্রজন্মকে দক্ষ ও যোগ্য নাগরিক হিসাবে গড়ে তোলার জন্য শিক্ষকদের অনেক অবদান ও দায়িত্ব রয়েছে।


শিক্ষার মান উন্নয়নে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার দেয়া ডিও লেটারে ৭টি বিষয়ের উপর গুরুত্ব দেয়া হয়েছে। শুরুতেই শিক্ষকদের সকাল ৯টা ৪৫ মিনিটে গমন ও বিকাল ৪টায় প্রস্থানের বিষয়টি প্রধান শিক্ষককে নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে।

পরে নতুন শিক্ষার্থীদের দক্ষতা ও মেধা অনুযায়ী বিভিন্ন গ্রেডে বিভক্ত করে পাঠদান নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের স্কুলমুখী করতে একজন শিক্ষককে গাইড টিচার হিসাবে দায়িত্ব পালনের পাশাপাশি মোবাইল ফোন নম্বর সংগ্রহ করে অভিভাবকদের সাথে যোগাযোগ, প্রয়োজনে সরাসরি যোগাযোগের কথা বলা হয়েছে। শুধু তাই নয়, সম্পর্ক উন্নয়নে শিক্ষক আর অভিভাবকদের তিন মাস অন্তর অন্তর একটি করে অভিভাবক সমাবেশ করতেও বলা হয়েছে ডিও লেটারে।

এদিকে ডিও লেটারে শিক্ষার্থীদের পাঠদানের প্রতি গুরুত্ব আরোপ করে কয়েকটি বিষয় উল্লেখ্য করা হয়েছে। শুরুতেই বলা হয়েছে অষ্টম ও দশম শ্রেণির ছাত্র-ছাত্রীর অভিভাবকদের সাথে যোগযোগ ব্যতীত ছুটি প্রদান করা যাবে না। নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে সিলেবাস অনুযায়ী অধ্যায় শেষ করে প্রতি অধ্যায়ে শ্রেণি অভিক্ষা গ্রহন করতে হবে। মাল্টিমিডিয়া ক্লাশের প্রতি সকল শিক্ষককে দায়িত্বশীল হওয়ার কথাও বলা হয়েছে।  প্রতিদিন ন্যুনতম ছয়টি পিরিয়ড মাল্টিমিডিয়ার মাধ্যমে করতে হবে। দুই ঘন্টা পর পর শ্রেণিকক্ষে হাজিরা নিশ্চিত করতে হবে। প্রতিদিন শিক্ষার্থী সমাবেশের কথাও বলা হয়েছে।

অপরদিকে সরকারের প্রজ্ঞাপন অনুযায়ী প্রাইভেট, কোচিং বিষয়ে বিধি মোতাবেক ব্যবস্থা গ্রহন করতে হবে। প্রত্যেক শিক্ষাথীর জন্য ফলো আপ মেনটেইন, সাপ্তাহিক শ্রেণি কার্যক্রমে শিক্ষার্থীর সক্রিয় অংশগ্রহণে শ্রেণি অভীক্ষা এবং মডেল টেষ্ট ইত্যাদির মাধ্যমে সুনির্দিষ্ট অধ্যায় শেষ করত: রেকর্ড সংরক্ষণের কথা বলা হয়েছে। শিক্ষার্থীদের সঠিক অগ্রগতি পর্যালোচনার মাধ্যমে পরবর্তী কার্যক্রমের ব্যবস্থার পদক্ষেপ গ্রহন করতেও বলা হয়েছে।

ডিও লেটারে আরো বলা হয়েছে বিষয়গুলো অতি জরুরী ভিত্তিতে বাস্তবায়ন করে দেশের উন্নয়নে একজন গর্বিত অশিংদার হতে শিক্ষকদের প্রতি আহবান জানানো হয়েছে।

এ ব্যাপারে শাহপীর কল্লা শহীদ উচ্চ বিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষক পারভীন আক্তার বলেছেন, গতকাল সোমবার আমরা ১৪জন শিক্ষক ডিও লেটার হাতে পেয়েছি। ইতিমধ্যে শিক্ষার মান উন্নয়নে ডিও লেটারের বিষয়গুলো বাস্তবায়নের পথে আমরা এগিয়ে যাচ্ছি।

এ ব্যাপারে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুজ্জামান বলেছেন, শিক্ষার গুণগত মান উন্নয়নে পর্যায়ক্রমে উপজেলার সব স্কুলের শিক্ষককে এই ডিও লেটার দেয়া হবে।

তিনি আরো বলেছেন, একজন শিক্ষকের সঠিক দায়িত্ব ও কর্তব্য পালনের মাধ্যমেই সুশৃখল ও প্রানবন্ত হয়ে উঠে শ্রেণির কার্যক্রম। শিক্ষক তার নিজস্ব চিন্তা, চেতনা, ব্যক্তিত্ব, মেধা-যোগ্যতা, মননশীলতা আর আধুনিক প্রযুক্তি প্রয়োগে শ্রেণি কার্যক্রম পরিচালনা করবেন। একজন শিক্ষককে হতে হবে দৃঢ়চেতা, উত্তম নৈতিক চরিত্রের অধিকারী, নিরপেক্ষ অকুতোভয়, সত্যবাদী। তিনি তার অনুপম চরিত্র মাধুর্য দিয়ে শিক্ষার্থীর মন জয় করবে।

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!