ব্রেকিং

x

আখাউড়ায় রেল কর্মচারীদের হাতাহাতি, চট্টলা এক্সপ্রেসের এক ঘন্টা বিলম্ব

রবিবার, ২৩ জুন ২০১৯ | ৫:৪১ অপরাহ্ণ | 1176 বার

আখাউড়ায় রেল কর্মচারীদের হাতাহাতি, চট্টলা এক্সপ্রেসের এক ঘন্টা বিলম্ব

আজ রোববার দুপুরে গার্ড ও সিগন্যাল কর্মচারীর ঝগড়াকে কেন্দ্র করে আখাউড়ায় চট্টগ্রাম-ঢাকাগামী চট্টলা এক্সপ্রেসের প্রায় এক ঘন্টা যাত্রা বিলম্ব হয়েছে। এতে ট্রেন যাত্রীরা চরম দুভোর্গের শিকার হয়। তবে ট্রেন কন্ট্রোল রোম থেকে বলা হয়েছে আন্ত:নগর জয়েন্তিকা এক্সপ্রেসকে লাইন দিতে গিয়ে চট্টলা এক্সপ্রেসের যাত্রা বিলম্ব হয়েছে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়, চট্টগ্রাম-ঢাকাগামী চট্টলা এক্সপ্রেস ট্রেনটি আখাউড়া জংশন স্টেশনে আজ রোববার দুপুর ১২টা ৪০ মিনিটে যাত্রা বিরতি করে। এসময় ভৈরব বাজার জংশন স্টেশনের সিগন্যাল অফিসের কর্মচারী আবু বক্কর এই ট্রেনের বগিতে তেলে ড্রাম তুলতে গেলে এসএস স্টাফ জাহাঙ্গীর বাধা দিতে থাকে। এ নিয়ে দুইজন ঝগড়ায় লিপ্ত হয়। এক পর্যায়ে দু’জনের মধ্যে হাতাহাতি শুরু হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে চট্টলা এক্সপ্রেসের চলাচল বন্ধ হয়ে পড়ে। পরে বিষয়টি নিষ্পত্তি হওয়ার দুপুর ১টা ৩০ মিনিটে ট্রেনটি আখাউড়া স্টেশন ছেড়ে যায়। এতে ট্রেন যাত্রীরা চরম দুর্ভোগের শিকার হয়। প্রচন্ড গরমে অতিষ্ঠ হয়ে পড়ে যাত্রীরা।

সিগন্যাল স্টাফ ইদ্রিস মিয়া জানায়, চট্টলা এক্সপ্রেসে জেনারেটরের তেলের ড্রাম তুলতে গেলে ট্রেনের গার্ড বাধা দেয়ায় দিলে তাদের মধ্যে কথাকাটাকাটি হয়।

চট্টলা এক্সপ্রেসের যাত্রী আখাউড়ার জীবন চৌহান (৪২), তাপস ভৌমিক (৪১), কুমিল্লার জুয়েল মিয়া (২৭), নরসিংদীর ইয়াছমিন বেগম (৬৫), টঙ্গীর জাহাঙ্গীর (৪৭) জানায়, ট্রে চলাচলের মধ্যে থাকলে বাতাসে গরমের তীব্রতা কম থাকে। যাত্রা বিরতি করলেই গরমে অস্থির হয়ে উঠে যাত্রীরা। ৫ মিনিটের যাত্রা বিরতি ১ ঘন্টায় গিয়ে ঠেকছে। প্রচন্ড গরমে চরম দুর্ভোগের মধ্যে এই এক ঘন্টা সময় কেটেছে বলেও তারা জানিয়েছেন। ট্রেনে কয়েকজন শিশু গরমের তীব্রতায় অস্থির হয়ে যায়।

চট্টলা এক্সপ্রেস ট্রেনের গার্ড  এস, কে ঘোষ জানায়, বগির ভেতরের বিভিন্ন স্থানে তেল পড়ে নোংরা হয়ে তাই চট্টলা এক্সপ্রেস ট্রেনে তেলের ড্রাম তুলতে বাধা দিয়েছি আমরা। এতে ভৈরব বাজার জংশন স্টেশনের সিগন্যাল বিভাগের কর্মচারী আবু বক্কর এসএস স্টাফ জাহাঙ্গীরের উপর চড়াও হয়ে যায়। এই সমস্যা এড়াতে কিছু সময় সিগন্যাল বন্ধ রাখা হয় তবে জয়েন্তিকা এক্সপ্রেসকে লাইন দিতে কিছুটা বিলম্ব হয় ট্রেন।

আখাউড়া স্টেশন ইনর্চাজ মো: খলিলুর রহমান জানায়, তিনি নামাজে ছিলেন তাই এই বিষয়ে তিনি কিছু জানেন না।

আখাউড়া ট্রেন কন্ট্রোল রোমের কর্মকর্তা মো: সোহেল বলেছেন, আন্ত:নগর জয়েন্তিকা এক্সপ্রেসকে লাইন দিতে গিয়ে চট্টলা এক্সপ্রেসের যাত্রা বিলম্ব হয়েছে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!