ব্রেকিং

x

আখাউড়ায় ভোটার কার্ড না থাকলেও সরকারী ত্রাণ পাবেন গরিব দুস্থ মানুষরা-ইউএনও রেইনা

বৃহস্পতিবার, ২১ মে ২০২০ | ১:৪১ অপরাহ্ণ | 765 বার

আখাউড়ায় ভোটার কার্ড না থাকলেও সরকারী ত্রাণ পাবেন গরিব দুস্থ মানুষরা-ইউএনও রেইনা
অনলাইন থেকে সংগৃহিত ছবি

আখাউড়ায় ভোটার আইডি কার্ড বা জাতীয় পরিচয়পত্র না থাকলেও স্বল্প আয়ের হতদরিদ্র মানুষকে সরকারী ত্রাণ সহায়তা দেয়া হচ্ছে। ভাসমান গরিব দুস্থ মানুষদের মধ্যেও নিয়মিত সরকারী ত্রাণ বিতরণ হচ্ছে। আজ বৃহস্প্রতিবার সকালে আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহমিনা আক্তার রেইনা  এই তথ্য জানিয়েছেন।


তিনি আরো জানান, করোনার কারণে কর্মহীন ও দুস্থ মানুষকে মানবিক সহায়তা হিসাবে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশনা অনুযায়ী ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রশাসক মহোদয়ের আদেশে আখাউড়ায় ভোটার আইডি কার্ড ছাড়াও ভাসমান গরিব দুস্থ মানুষদের মধ্যে নিয়মিত সরকারী ত্রাণ সামগ্রী দেয়া হচ্ছে।


আরও পড়ুন : আখাউড়ায় ভারতীয় পরিবারের আটকে পড়া ও মানবতার গল্প

তিনি বলেন, করোনাভাইরাস পরিস্থিতির কারণে সৃষ্ট দুর্যোগে আখাউড়া উপজেলায় বসবাসকারী রেস্টুরেন্ট, মোটরযান, নির্মান, কৃষি কাজে নিয়োজিত শ্রমিক, চা দোকানদার, দিনমজুর, ভবঘুরে, প্রতিবন্ধী, বয়স্ক, স্বামী পরিত্যক্ত, বিধবা, রিক্সা-ভ্যানচালক, ভিক্ষুক, হিজড়া সম্প্রদায় ও পথশিশুদের মধ্যে সরকারী ত্রাণ সহায়তা দেয়া হচ্ছে। এই কার্যক্রম চলমান রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, খড়মপুর মাজার এলাকায় একদিনে ৮৮ জন অসহায় ভাসমান মানুষকে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়েছে। ত্রাণ সহায়তা দেয়া হয়েছে অনেক হিজড়া সম্প্রদায়কে। এছাড়াও নিয়মিত উপজেলা প্রশাসন থেকে ভোটার আইডি কার্ড বিহীন অসহায় ভাসমান মানুষদের নিয়মিত সরকারী ত্রাণ সহায়তা দেয়া হচ্ছে। সহায়তা চেয়ে কেউ ফোন করলে উপজেলা প্রশাসন ত্রাণ সহায়তা পৌছে দিচ্ছে।

আরও পড়ুন : আখাউড়ায় জমানো টাকা সরকারি কোষাগারে দিলেন পূজারি

তিনি আরো বলেন, ভোটার আইডি না থাকায় কোনো অসহায়, ভাসমান গরিব ও দুস্থ ব্যক্তিকে সরকারী ত্রাণ সহায়তা থেকে বাদ দেয়া হয়নি। শুধু তালিকাভুক্ত ত্রাণ সহায়তা তারা  পাচ্ছে না।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা তাহমিনা আক্তার রেইনা আখাউড়াবাসীর উদ্দেশ্যে বলেছেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী সকলের ব্যক্তিগত নিরাপত্তা বিধানের স্বার্থে অতিপ্রয়োজনীয় চলাচলের ক্ষেত্রে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার নির্দেশনা প্রদান করেছেন।

তিনি বলেন, প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা অনুযায়ী কর্মহীন কোন ব্যক্তি খাদ্যাভাবে থাকবে না। খাদ্যের নিশ্চয়তা বিধান করা হয়েছে। নিশ্চিন্তে ঘরে থাকুন, করোনা ভাইরাস থেকে মুক্ত থাকুন, স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলুন।

আরও পড়ুন :  ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় সুদবিহীন ঋণসহ পাঁচদফা দাবি বেসরকারি শিক্ষকদের

তিনি আরো বলেন, মাননীয় আইনমন্ত্রী অ্যাডভোকেট আনিসুল হক এমপি নিয়মিত আখাউড়া উপজেলাবাসীর খবর রাখছেন। বিদ্যমান পরিস্থিতিতে কেউ খাদ্য সংকটে থাকবে না। খাদ্যের অভাব থাকলে স্থানীয় জনপ্রতিনিধিকে জানাবেন অথবা উপজেলা প্রশাসনকে জানাবেন।

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!