ব্রেকিং

x

ফলো আপ

আখাউড়ায় টর্ণেডোতে ক্ষতিগ্রস্থ ১২ পরিবারকে আইনমন্ত্রীর ত্রাণ সহায়তা প্রদান

রবিবার, ১৩ মে ২০১৮ | ১০:৪৬ পূর্বাহ্ণ | 523 বার

আখাউড়ায় টর্ণেডোতে ক্ষতিগ্রস্থ ১২ পরিবারকে আইনমন্ত্রীর ত্রাণ সহায়তা প্রদান

টর্নেডোতে ক্ষতিগ্রস্থ মনিয়ন্দে আইনমন্ত্রীর ত্রাণ সহায়তা প্রদান শুরু হয়েছে। শনিবার ক্ষতিগ্রস্থদের মধ্যে ১২টি পরিবারকে টিন ও নগদ টাকা দিয়ে সহায়তা করা হয়। আইনমন্ত্রীর পক্ষে বিকাল ৩টায় আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুজ্জামান টিন ও নগদ টাকা তুলে দেন ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের লোকজনের হাতে।


জানা যায়, গত ২৯ এপ্রিল টর্ণেডোতে মনিয়ন্দ ইউনিয়নের গোয়াইল গাংগাইল, মনিয়ন্দ. টনকী, ও কর্ণেলবাজার এলাকায় স্কুলসহ অর্ধশতাধিক বাড়িঘর ও ৫ শতাধিক গাছপালার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হয়। খবর পেয়ে তাৎক্ষনিক উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুজ্জামান ক্ষতিগ্রস্থ এলাকা ঘুরে দেখেন এবং ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের লোকজনের সাথে কথা বলে ত্রাণ সহায়তার আশ্ব্যাস দেন।


এদিকে শনিবার প্রথম পর্যায়ে ১২টি ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে টিন ও নগদ টাকা দিয়ে সহায়তা করা হয়। প্রতিটি পরিবারে ১ বান্ডেল টিন ও নগদ ৩ হাজার টাকা করে দেয়া হয়েছে। আইন, বিচার ও সংসদ বিষয়কমন্ত্রী এ্যাডভোকেট আনিসুল হক এমপি এই ত্রান সহায়তা প্রদান শুরু করেছেন। আইনমন্ত্রীর পক্ষে আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুজ্জামান ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের লোকজনের হাতে টিন ও নগদ টাকা তুলে দেন। ত্রাণ সহায়তা পেয়ে ক্ষতিগ্রস্থরা আইনমন্ত্রীর প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মোহাম্মদ শামছুজ্জামান বলেন, টর্নেডোতে ক্ষতিগ্রস্থ সকলকে পর্যায়ক্রমে ত্রাণ সহায়তা দেয়া হবে। গোয়াইল গাংগাইল সরকারী প্রাথমিক বিদ্যালয় অতিস্বত্বর মেরামত করে দেয়া হবে বলেও তিনি জানান।

তিনি আরো জানান, সাম্প্রতিকালে ধরখার ইউনিয়নের রাণীখারে ৫ ভাইয়ের একমাত্র সম্বল ৫ টি টিনের ঘর আগুনে ভষ্মীভূত হয়। আইনমন্ত্রী মহোদয়ের নির্দেশে তাদের ঘর নতুন করে তুলে দেয়া হচ্ছে বলেও তিনি জানিয়েছেন।

এদিকে মনিয়ন্দে ত্রান সহায়তাকালে আরো উপস্থিত ছিলেন উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ণ কর্মকর্তা তাপস চক্রবর্তী, গোয়াইলগাংগাইল এলাকার ম্বেম্বার হারুন মিয়া প্রমুখ।

শনিবার যারা ত্রাণ সহায়তা পেলেন-গোয়াল গাঙ্গাইল গ্রামের ক্ষতিগ্রস্থ শফিকুল ইসলাম, রমজান মিয়া, মমতাজ বেগম, মুরশিদ মিয়া, মো: ইসমাইল, জাহের মিয়া, মনির হোসেন, মনির মিয়া, মন্নান মিয়া, মনিয়ন্দের অনিল সুত্রধর, দেবগ্রামের বংশি রবি দাস, আমোদাবাদের পারভীন বেগম। তাদের নগদ ৩৬ হাজার টাকা ও ১২ বান্ডেল টিন দেয়া হয়।

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!