ব্রেকিং

x

আখাউড়ায় করোনা ভালো হওয়ার পর মারা গেলেন ব্যবসায়ি

বৃহস্পতিবার, ১১ জুন ২০২০ | ৯:২৩ পূর্বাহ্ণ | 1426 বার

আখাউড়ায় করোনা ভালো হওয়ার পর মারা গেলেন ব্যবসায়ি
ছবি-রতন পারভেজ

করোনা আক্রান্ত হওয়ার পরবর্তী রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পর মারা গেলেন আখাউড়া উপজেলার গঙ্গানগর গ্রামের  ব্যবসায়ি তাপস সাহা। বুধবার দিবাগত রাতে সাড়ে ১২টায় নিজ বাড়িতে তিনি মারা যান। বৃহস্পতিবার সকালে সৎকারের জন্য তাঁর লাশ স্থানীয় শ্মশাণে নেয়া হয়। মৃত তাপস সাহা গঙ্গানগর গ্রামের শচিন্দ্র চন্দ্র সাহার পুত্র।


এদিকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ওই ব্যক্তির সৎকার করার জন্য আখাউড়া উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। একই সঙ্গে যারা সৎকারে অংশ নিবেন তাদেরকে পরবর্তীতে হোমকোয়ারেন্টিতে থাকতেও বলা হয়েছে।
ঢাকায় হৃদরোগের চিকিৎসা করতে গিয়ে তাপস সাহার শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয় গত ২৪ মে। ৫ জুন তিনি নতুন করে আখাউড়া হাসপাতালে নমুনা দিলে পরবর্তীতে সেই রিপোর্টে করোনা নেগেটিভ আসে।


আরও পড়ুন: আখাউড়ায় লকডাউন পরিবারগুলোতে খাবার পাঠালেন ইউএনও রেইনা

করোনা আক্রান্ত তাপস সাহার পুত্র কৌশিক সাহা জানান, তার বাবা তাপস কুমার সাহা গত ১৭ মে মোগড়া বাজারে ৩৫০ জন দরিদ্র মানুষের মধ্যে ব্যক্তিগত অর্থে  ত্রাণ বিতরণ করেন। ত্রাণ বিতরণের দুইদিন পর হঠাৎ হার্টের রোগে আক্রান্ত হলে ঢাকার ল্যাব এইড হাসপাতালে নিয়া যাওয়া হয়। সেখানে চিকিৎসার পর শরীরে জ্বর আসলে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ তার করোনা পরীক্ষার নমুনা সংগ্রহ করেন। ২৪ মে রিপোর্টে তার শরীরে করোনা ভাইরাস সনাক্ত হয়।

তিনি আরো জানান, করোনা শনাক্তের পর ল্যাব এইড হাসপাতালের আইসোলেশনে কয়েকদিন থাকার পর ডাক্তার ছাড়পত্র দিলে তার বাবাকে ২৮ মে আখাউড়ায় এনে হোম আইসোলেশনে রাখা হয়। ডাক্তারের পরামর্শে হোম আইসোলেশনে থাকায় তারা আখাউড়া হাসপাতাল কিংবা উপজেলা প্রশাসনকে বিষয়টি জানানো হয়নি।  গত ৫ জুন
শুক্রবার বিষয়টি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সকে অবগত করে নতুন করে করোনার নমুনা দেয়া হয়। পাশাপাশি অন্যদেরও নমুনা দেয়া হয়।

আরও পড়ুন: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় করোনার উপর্সগ নিয়ে স্বাস্থ্যকর্মীসহ ২ জনের মৃত্যু

আখাউড়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের আরএমও ডা: শ্যামল চন্দ্র ভৌমিক জানায়, তাপস সাহার করোনা শনাক্ত হয় ঢাকায়। পরবর্তীতে তিনি আর নমুনা দিতে আসেন। নমুনা নিয়ে ওনাকে হোম আইসোলেশনে থাকতে বলা হয়। গত মঙ্গলবার আসা ফলাফলে তিনিসহ পরিবারের সবার নেগেটিভ আসে।
আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসার (ইউএনও) তাহমিনা আক্তার রেইনা জানান, ওই ব্যক্তির মারা যাওয়ার বিষয়টি তিনি জেনেছেন। স্বাস্থ্যবিধি মেনে সৎকার করার পাশাপাশি যারা অংশ নিবেন তাঁদেরকে হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে হবে।

আরও পড়ুন: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় নতুন করে আরো ২৮ জন করোনায় আক্রান্ত

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!