ব্রেকিং

x

আখাউড়ার ‘প্রয়াত’ মেয়র তাকজিল খলিফা যা বললেন

রবিবার, ০৩ মে ২০২০ | ৪:৪১ অপরাহ্ণ | 3460 বার

আখাউড়ার ‘প্রয়াত’ মেয়র তাকজিল খলিফা যা বললেন

আখাউড়া পৌরসভার মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল ভাই ৩-৩০ মিনিট সময় মারা গেছে-রবিবার ভোর সোয়া চারটার দিকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে এমন একটি পোস্ট দেয়া হয়। তবে মেয়র তাকজিল খলিফা কাজল সম্পূর্ণ সুস্থ আছেন।


ফেসবুকে প্রয়াত ওই মেয়র বলেন, ‘এর আগেও ফেসবুকে আমার বিরুদ্ধে অপপ্রচার হয়েছে। বেশ কিছু ফেক আইডি এসব অপপ্রচার চালায়। কিন্তু সকলের দোয়া ও সহেযোগিতায় আমার কোনো ক্ষতি করতে পারেন নি তারা। এখন হয়তো তাঁরা আমার মৃত্যু চায়। ফেসবুক পোস্টের মাধ্যমেই আমার মৃত্যু ঘটাতে চায়। তাঁরা হয়তো এতে মনের শান্তি পায়। আমি বলবো আল্লাহ তায়ালা যেন তাঁদের শুভ বুদ্ধির উদয় করেন।’


খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, ‘প্রাণের আখাউড়া’ নামে একটি আইডিতে ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া পৌরসভার মেয়র ও উপজেলা যুবলীগের আহবায়ক মো. তাকজিল খলিফা কাজলের মৃত্যুর খবর পোস্ট করা হয়। জান্নাত আক্তার নামে একটি আইডি থেকে এ পোস্ট দেয়া হয়। জান্নাত আক্তার নামে ওই আইডিতে এক নারী পুলিশ কর্মকর্তার ছবি দেয়া আছে। আইডিটি ফেক বলেই ধারণা করা হচ্ছে।

তাকজিল খলিফার ঘনিষ্টজন পৌর এলাকার রাধানগর গ্রামের বাসিন্দা মো. ফখরুল ইসলাম জানান, সকালে অনেকেই ফোন করে মেয়রের ভালো-মন্দ থাকা বিষেয়ে জানতে চান। অনেকে মিথ্যা অপপ্রচারের কথাও জানিয়েছেন।

ফেক আইডি দিয়ে যারা মেয়রের বিরুদ্ধে যড়যন্ত্র করছে তাদেরকে আইনের আওতায় এনে দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবী করেছেন মেয়র তাকজিল খলিফা কাজলের ঘনিষ্টজন উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম আহবায়ক আব্দুল মমিন বাবুল।

আখাউড়া পৌরসভা যুবলীগের সভাপতি মনির খান ও সাধারন সম্পাদক মো: কাউছার ভুইয়া এই ফেক আইডির বিরুদ্ধে প্রতিবাদ জানিয়ে বলেন, ফেক আইডির ব্যক্তিকে খোজে বের করে শাস্তি দিতে সংশ্লিষ্ট প্রশাসনের দৃষ্টি আকষণ করছি

একাধিক সূত্র জানায়, এর আগেও আইনমন্ত্রীকে জড়িয়ে মেয়রের বিরুদ্ধে বিভিন্ন ফেসবুক আইডি থেকে অপপ্রচার চালানো হয়। তাঁরা শুরুতে আইডিতে মেয়রের প্রশংসা করে পোস্ট দেয়। এরপর কৌশলে এমন কিছু পোস্ট দেন যাতে মেয়র বিব্রত হন। একটি চক্র এর সঙ্গে জড়িত। মেয়রকে তাঁরা নানাভাবে বিভ্রান্ত করে এ থেকে পরিত্রান পেতেও চেষ্টা করছেন। কেউ কেউ মেয়রের সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রক্ষা করে স্বার্থ হাসিলের চেষ্টা করছেন। এর আগে এসব বিষয় নিয়ে থানায় অভিযোগ দায়ের হলেও সংশ্লিষ্টদেরকে খোঁজে বের করতে পারেন নি পুলিশ। যে কারণে এ ধরণের প্রবণতা অব্যাহত আছে। আইনমন্ত্রী ও কসবা-আখাউড়ার সংসদ সদস্য আনিসুল হক এম.পি’র ঘনিষ্টজন হিসেবে পরিচিত তাকজিল খলিফা কাজল। এলাকায় ব্যাপক উন্নয়ন কর্মকান্ড করে, প্রায় দুই হাজার যুবককে চাকরির ব্যবস্থা করে দিয়ে, সর্বোপরি সবার ফোন রিসিভ করে লোকজনের মুখে মুখে আইনমন্ত্রীর প্রশংসা।

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com

error: Content is protected !!