ব্রেকিং

x

হাত দিয়ে খাবার খান, সুস্থ্য থাকুন

শনিবার, ২০ জানুয়ারি ২০১৮ | ২:১০ পূর্বাহ্ণ | 576 বার

হাত দিয়ে খাবার খান, সুস্থ্য থাকুন

এক সময় সবাই প্রায় হাত দিয়েই খাবার খেত। তবে আধুনিক যুগের কল্যাণে হাতের কাজ করছে চামচ। অনেকে চামচ দিয়েই সব খাবার খান। হাত দিয়ে খাবার খাওয়ার অনেক উপকারিতা রয়েছে। তবে এটা নিয়েও অনেকে প্রশ্ন তুলেছেন। তারা জানতে চান শরীরের ভালো-মন্দের সঙ্গে হাত দিয়ে খাওয়ার কোনো সম্পর্ক রয়েছে কি না। এই নিয়ে পরীক্ষা চালাতে গিয়ে বিজ্ঞানীরা দেখেন—

১) স্নায়ুকোষ সক্রিয় হয় : হাত দিয়ে খাবার খাওয়ায় আমাদের হাতের একাধিক নার্ভ অ্যাকটিভ হয়। এর সরাসরি প্রভাব পড়ে মস্তিষ্কের ওপর। সেই সঙ্গে শরীরের অন্দরে এমন কিছু পরিবর্তন হয় যে বায়ু, পিত্ত ও কফ—এই তিনের ভারসাম্য বজায় থাকে। ফলে কোনো রোগ কাছে ঘেঁষতে পারে না। আয়ুর্বেদ শাস্ত্র অনুসারে যেকোনো রোগ শরীরে বাসা বাধার পিছনে বায়ু, পিত্ত এবং কফের ভূমিকা রয়েছে। এই তিনের মধ্যেকার অনুপাত বজায় থাকলে শরীর নিয়ে চিন্তার কিছু থাকে না।

আধুনিক গবেষণা বলছে, হাত দিয়ে খাওয়ার সময় আঙুলের একেবারে মাথার কাছে থাকা নার্ভগুলো যখনই খাবারের স্পর্শ পায়, তখনই একটা বিশেষ সংকেত পাকস্থলিতে এসে পৌঁছায়। ফলে খাবার শরীরে প্রবেশ করার আগেই পাকস্থলী নিজের কাজ করার জন্য প্রস্তুত হয়ে থাকে।

২) পুষ্টির ঘাটতি হওয়ার আশঙ্কা থাকে না : হাত দিয়ে খাবার খাওয়ার সময় তাড়াহুড়ো করে খাবার খাওয়া সম্ভব হয় না। ফলে খাবার হজম হওয়ার যথেষ্ট সুযোগ থাকে। আর শরীর তার প্রয়োজনীয় পুষ্টির যোগানও পেয়ে যায়। তাই পুষ্টির অভাবের কারণে নানা রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা কমে যায়।

৩) শরীর চর্চারও একটি গুরুত্বপূর্ণ অংশ : হাত দিয়ে খাবার খাওয়ার সময় একাধিক পেশীর সঞ্চালন হয়। তাই হাতের পাশাপাশি সারা শরীরে রক্তের সরবরাহ বেড়ে যায়। আর এমনটা হওয়া মাত্র বিভিন্ন অঙ্গে অক্সিজেন সমৃদ্ধ রক্তও পৌঁছে যায়। আর সে কারণে শরীরের প্রতিটি অংশ উজ্জীবিত হয়ে ওঠে।

 হজমের রোগ সেরে যায় : একেবারেই ঠিক শুনেছেন! হাত দিয়ে খাবার খেলে বদ হজম ও গ্যাস অম্বলের মতো সমস্যা মাথা তুলে দাঁড়ানোর সুযোগই পায় না। আসলে হাত দিয়ে খাওয়ার সময় হাতে থাকা কিছু উপকারী ব্যাকটেরিয়া শরীরে প্রবেশ করার সুযোগ পেয়ে যায়। এই ব্যাকটেরিয়াগুলি হজমের উন্নতি ঘটানোর পাশাপাশি মুখ, গলা এবং অন্ত্রকে সুরক্ষিতে রাখতে বিশেষ ভূমিকা পালন করে থাকে।

 ডায়াবেটিস রোগে ধরার আশঙ্কা কমে: জার্নাল অব ক্লিনিক্যাল নিউট্রিশনে প্রকাশিত একটি রিপোর্ট অনুযায়ী তাড়াতাড়ি খাওয়ার সঙ্গে ডায়াবেটিস রোগের সরাসরি যোগ রয়েছে। আর আগেই বলা হয়েছে, হাত দিতে দ্রুত খাবার খাওয়া সম্ভব হয় না। তাই সবারই হাত দিয়ে খাবার খাওয়া উচিত।

 খাবারে মন বসে : শুধু যে পড়াশোনাই মন দিয়ে করতে হয়, এমন কিন্তু নয়। খাওয়া-দাওয়ার সময়ও মনটাকে বেঁধে রাখার প্রয়োজন রয়েছে। কারণ খাদ্য গ্রহণের সময় মনটাকেও বেধে না রাখলে যেমন তৃপ্তি পাওয়া যায় না, তেমনি শরীরেরও অনেক ক্ষতি হয়। সেই কারণেই হাত দিয়ে খাবার খেতে পরামর্শ হয়ে থাকে। কারণ একাধিক কেস স্টাডিতে দেখা গেছে, কেউ যখন কাঁটা-চামচের পরিবর্তে হাতের সাহায্য নেন খাবার গ্রহণের সময়, তখন প্রতিটি দানার সঙ্গে তার মনের একটা সংযোগ তৈরি হয়। ফলে নানাদিক থেকে উপকার মেলে।

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

আখাউড়ানিউজ.কমে প্রকাশিত/প্রচারিত কোনো সংবাদ, তথ্য, ছবি, ভিডিও চিত্র, কপিরাইট আইন অনুযায়ী পূর্বানুমতি ছাড়া কোথাও ব্যবহার করা যাবে না।

Development by: webnewsdesign.com